Products

কোন পাথরের কত দাম ও সকল রত্ন পাথরের দাম জেনে নিন।

কোন পাথরের কত দাম, আজ আমরা পাথরের গুনাগন নিয়ে আলোচনা করব। পাথরে বিভিন্ন গুন রয়েছে যা আপনাকে নানাবিধ সফলতা এনে দিতে পারে। তাই আজ আমরা সকল পাথরের দাম ও গুনাগুন নিয়ে আলোচনা করব। আজকের আর্টিকেলে আপনারা সকল কিছু জানতে পারবেন।

রত্ন ধারন করার উদ্দেশ্য হলো কোনও অশুভ গ্রহের খারাপ প্রভাব থেকে মুক্ত হওয়া নয়। এগুলি ধারনের উদ্দেশ্য কোনও উপকারী গ্রহ কম ডিগ্রিযুক্ত হয়ে বা নীচস্থ অবস্থায় থাকলে তার শুভফল বৃদ্ধি করা।

কোন পাথরের কত দাম

বৈদিক জ্যোতিষেরা  গ্রহদের রং দেখেই তাদের জন্য রত্ন নির্বাচন করা হয়েছে। মহাকাশে শনির রং নীল, বুধের রং সবুজ, বৃহস্পতির রং হলুদ, মঙ্গলের রং লাল, এগুলো আমরা সবাই জানি। তাই শনি, বুধ, বৃহস্পতি, মঙ্গলের জন্য যথাক্রমে নীলা, পান্না, পোখরাজ, রক্তপ্রবাল ইত্যাদি নির্দিষ্ট করা হয়েছে। তাহলে চলোন পাথরের গুনাগুন সর্ম্পকে জানা যাক।

কোন পাথরের কত দাম ও সকল রত্ন পাথরের দাম জেনে নিন

পান্না পাথর কি?

কোন পাথরের কত দাম, পান্না মধ্যম থেকে গাঢ় সবুজ রঙের সুন্দর রত্ন পাথর। ষড়ভূজাকৃতির কেলাস আকারে এটি পাওয়া যায়। বেশির ভাগ পান্নাই ঘোলাটে বর্ণের এবং খুঁতযুক্ত হয় থাকে । নিখুঁত ও সুন্দর পান্না খুবই দামি রত্ন। খনিজ পাথরের সাথে পান্নার পার্থক্য হলো শুধু পান্নাই অভ্র শিলাস্তরে বা চুনাপাথরে পাওয়া যায়। পান্না পাথর সবচেয়ে বেশি পাওয়া যায় কলম্বিয়ার মুজো এবং এল সিভর খনিতে। উরাল পর্বতমালার টকোভোয়া-তে আভ্রখনিতেও পান্না পাওয়া যায়। অবশ্য সেখানে তা বেরিলিয়ামের আকরিক ক্রিসোবেরিল ও ফেনাকাইটের সঙ্গে মিশ্রিত অবস্থায় থাকে। এছাড়াও অস্ট্রিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভারতের কালিগুমানে পান্না পাথর পাওয়া যায়।

পান্না পাথর উপকারিতা কি?

বৈদিক জ্যোতিষের মতে জন্ম তারিখ অনুযায়ী যাদের মিথুন রাশি (২২ মে থেকে ২১ জুন), কন্যা রাশি (২৪ আস্ট থেকে ২৩ সেপ্টেম্বর) বৃষ রাশি (২১ এপ্রিল থেকে ২১ মে), ও তুলা রাশি (২৪ সেপ্টেম্বর অক্টোবর) তাদের জন্য পান্না পাথর ব্যবহার করা উপকারী।

১. পান্না পাথর মানুষের মনোযোগ বৃদ্ধি, স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি, কোন কিছু অর্জনের ইচ্ছা শক্তিকে বৃদ্ধি এবং বিচার বুদ্ধি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করতে পারে।

২. পান্না পাথর ধারনে সন্তান, স্বামী-স্ত্রীর সাথে সুসম্পর্ক বজায় থাকে এবং উচ্চ শিক্ষায় আগ্রহ বৃদ্ধি পেতে পারে।

৩. ব্যবসায়িক কাজে পান্না পাথর ব্যবহার করলে সফলতা আসার সম্ভাবনা অনেক বেশী ।

৪. পান্না পাথর ধারনে সাপ, বিচ্ছু সহ অন্য সকল বিষধর প্রানি দূরে থাকে। (সুত্রঃ Marifat al Jawahir, Syedi Ibrahim Saify)

৫. পান্না পাথর ব্যবহারকারী যদি কোন প্রকারের বিষাক্ত খাদ্য গ্রহন করে ফেলে তাহলে অবিলম্বে তার মুখে ঘাম দেখা দিবে।

৬. পান্না পাথর ব্যবহারে শত্রুদের পরাজিত করতে সাহায্য করে।

পান্না পাথর ধারনে দুশ্চিন্তা দূর হয় এবং এটি কুষ্ঠ রোগ নিরাময়ে সাহায্য করে।

৭. পান্না পাথরের সবুজের দিকে এক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকলে চোখের দৃষ্টি শক্তি বৃদ্ধি পায়।

৬. পান্না পাথর ধারনে মাথা ঠাণ্ডা থাকে যাতে করে দন্দ-বিরোধ কমে আসে।

৭. স্বামী-স্ত্রী একে অপরের ব্যবহার করা পান্না পাথরের আংটি অদল-বদল করে ব্যবহার করে তাহলে তাদের পারস্পরিক আকর্ষণ বৃদ্ধি পায়।

৮. পান্না পাথর মৃগী রোগে উপকারী, এমনকি সন্তান প্রসবের সময় পান্না পাথর ধারন সন্তান প্রসব সহজ করে তোলে।

৯. যদি দুজন অপরের সাথে ভালোবাসার সম্পর্কে আবদ্ধ হয় এবং তারা যদি পান্না পাথর ব্যবহার করে তাহলে তাদের সুখ এবং ভালবাসা দীর্ঘস্থায়ী হতে পারে।

১০. গর্ভবতী মা তার হাতে পান্না পাথর ব্যবহার করেন তাহলে তার নিরাপদ এবং স্বাভাবিক সন্তান জন্ম হবার সম্ভাবনা থাকে।

১১. যে কোন মানুষিক সমস্যায় পান্না পাথর খুব উপকারী। এছাড়া চর্ম রোগ, কোষ্ঠ কাঠিন্য এবং যে কোন প্রকারের বুদ্ধি প্রতিবন্ধীদের জন্য পান্না পাথর ব্যবহার করা উপকারী।

১২. পান্না পাথর ব্যবহারে দারিদ্রতা দূর হয় এবং আর্থিক দিকে উন্নতি সাধিত হয় এবং যে পান্না পাথরের আংটি ব্যবহার করবে সে আর্থিক দুর্দশা থেকে মুক্ত থাকবে যদি মহান আলাহতালা ইচ্ছা করেন”।

পান্না পাথরের দাম

২১০০ টাকা প্রতি ক্যারেট থেকে শুরু করে মানের উপর নির্ভর বিভিন্ন দামের আছে।

আকিক পাথর

কোন পাথরের কত দাম, আকিক পাথর সব সময় ব্যবহারের ফলে রাগ প্রশমিত হয় এবং মাথা ঠাণ্ডা থাকে। আমাদের রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন রত্ন পাথর আকিক পাথর ব্যবহার করা বরকতময়। (হাদিস শরিফ)। আকিক পাথরের আংটি ব্যবহারে খারাপ পরিবেশে এবং প্রতিযোগিতায় জয় পেতে সাহায্য করে থাকে ।

একদিন জিব্রাইল (আঃ) রাসুলুল্লাহ (সাঃ) এর সাথে দেখা করতে এসে রাসুলুল্লাহ (সাঃ)কে লাল রঙের একটি আকিক পাথর উপহার দিয়ে সেটা ব্যবহার করতে বলেন এবং তাঁর সকল  উম্মতদের এর উপকার সম্পর্কে বলতে বলেন। সেখান থেকেই আকিক পাথরের আংটি ব্যবহার করা সুন্নত হিসেবে পালিত হয়ে আসছে।

যদি কোন ব্যক্তি আকিক পাথরের আংটি হাতের তালুর দিকে ঘুড়িয়ে পরিধান করে তার দিকে তাকিয়ে সূরা “আল কদর” পাঠ করে, সেই সময় থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত মহান আল্লাহতালা তাকে সকল প্রকার বিপদ-আপদ থেকে রক্ষা করবেন 

১. আকিক পাথর সব সময় ব্যবহারের রাগ প্রশমিত হয় ।

২. আমাদের রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন আকিক পাথর ব্যবহার করা বরকতময়। পবিত্র (হাদিস শরিফ)।

৩. আকিক পাথরের আংটি ব্যবহারে খারাপ পরিবেশে এবং প্রতিযোগিতায় জয় পেতে সাহায্য করে।

৪. আকিক পাথর (akik pathor) দুঃখ কমাতে সাহায্য করে।

৫. আকিক পাথর ধারন করে তখন তার শত্রুরা ভিত থাকে।

৬. আকিক পাথর মানুষের ইচ্ছা পূরণে শক্তি যোগায় ।

৭. আকিক পাথর ধারন হার্টের জন্য উপকারী।

৮. আকিক পাথর ধারন বুক ব্যাথা কমাতে সাহায্য করে এবং হজম শক্তি বৃদ্ধি করে।

৯. আকিক পাথর মনে প্রসান্তি আনে এবং মানসিকতা উন্নত করে।

১০. যে কোন যাত্রায় আকিক পাথর ধারন সৌভাগ্য সূচিত হয়।

১১. আকিক পাথর ধারণে শারীরিক শক্তি বৃদ্ধি পায়, গর্ভ ধারনে সাহায্য করে এবং পুরুষত্বহীনতা দূর করতে

আকিক পাথরের দাম

প্রতিটি ইয়েমেনি অকিকের মূল্য ১১০০ টাকা।

প্রতিটি পাথর ৭-৯ রতি।

আসল আকিক পাথর চেনার উপায়

পোকরাজ পাথর

পোখরাজ পাথর সাধারণত সোনালি হলুদ রঙের হয়। পোখরাজ পাথর বৃহস্পতি গ্রহের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে পরামর্শদাতা, আশাবাদী ও আদর্শবাদী করে তোলে। বিভিন্ন তথ্য থেকে জানতে পারি যে কোন প্রকার বিষের উপস্থিতিতে পোখরাজ পাথরের রঙ বদলে যায়। “Tradition of Ahl al Bait” থেকে পাওয়া যায়, যে ব্যাক্তি পোখরাজ পাথর ব্যবহার করবে সে কখনই দরিদ্র হবেনা কারনপোখরাজ পাথর সম্পদের সাথে সম্পর্কিত।

পোকরাজ পাথরের উপকারিতা

১. পোখরাজ পাথর ধারণে অন্যকে উজ্জীবিত করার শক্তি বেড়ে যায় এবং নিজের আত্মপ্রকাশের শক্তি বেড়ে যায়।

২. পোখরাজ পাথর শরীরকে গরম রাখে।

৩. পোখরাজ পাথর চর্মরোগ সারাতে সাহায্য করে, বিশেষ করে কুষ্ঠ রোগের জন্য পোখরাজ পাথর উপকারী।

৪. গর্ভ কালীন অবস্থায়, প্রসব বেদনায় জিহ্বার নিচে পোখরাজ পাথর রাখলে উপকার পাওয়া যায়।

৫. পোখরাজ পাথর রক্তের রোগে উপকারী, বিশেষ করে রক্তের ক্যান্সারের জন্য উপকারী।

৬. পোখরাজ পাথর সকল পরকার কোষ্ঠ কাঠিন্য ও পাইলসের জন্য উপকারী।

৭. পোখরাজ পাথর শক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে ও বুদ্ধি–বিচক্ষণতা বাড়াতে সাহায্য করে।

৮. পোখরাজ পাথর কিডনিতে হওয়া পাথরকে প্রসাবের সাথে বের হয়ে যেতে সাহায্য করে থাকে।

পোকরাজ পাথর দাম

পোকরাজ পাথর দাম, পার ক্যারেট ৭০০ টাকা, পার ক্যারেট ৯০০ টাকা, পার ক্যারেট ১০০০ টাকা, পার ক্যারেট ১৫০০ টাকার উপরে আরো দামের মধ্যে হয়ে থাকে, কারন ভালো কোয়ালিটির উপর ভাল দাম নির্ভর করে। যত ভালো নীলা তত বেশি দাম হবে।

মুক্তা পাথরের উপকারিতা

মুক্তা পাথর ধারন করলে গর্ভপাত থেকে রক্ষা করে। মুক্তা পাথর যৌন রোগেও উপকার দেয়। গোমেদ : সচরাচর জানুয়ারি মাসে জন্মগ্রহণকারীদের জন্য এই পাথর বেশি উপযোগী। রাহুর দশা যাদের চলে, তাদের মনে দ্বিধা দূর করার জন্য গোমেদ ধারণ করার পরামর্শ দেওয়া হয়।

বুলগেরিয়া, ইউরোপের হীরা বলা হয় যে দেশকে।

মুক্তা পাথরের দাম

মুক্ত – ১০০ – ৮০০ টাকা

আরও জেনে নিন বিভিন্ন রত্ন পাথরের দাম (প্রতি রতি বিচারে)

১. গোমেদ :75/150/250/350/500/600/800

২. গার্নেট -50/80 100/150 200/300/500/1000

৩. একোয়ামারিন 200/500/600 800/1000

৪. Sardonix 100/150/200/300/400/500

৫. নীলা :200/500/800/1200/2500/5000 /7000+10000

৬. পোখরাজ:200/500/1200/2500/5000/700/8000/10000

৭. পান্না :800/1200/2000/3000/5000/7000

৮. এমিথিস্ট :40/50/80/120/150/200

৯. টোপাজ :50/80/120/150/200

১০. সাদা টোপাজ :100/200/350/450/600

১১. নীল টোপাজ: 150/200/350/450/600

১২. সাদা জারকন :350/500/600/700/800

১৩. নীল জারকন:500/600/700/800

১৪. ক্যাটসআই:150/500/800/1200/2000/500

১৫. চুনী:200/500/800/1200/1500/2000/5000+

১৬. পেরিডট : 350/450/600/700/800

১৭. তুরমলিন :450/600/700/800/1000

১৮. মুনস্টোন :60/80/100/120/300/450/500+

১৯. কালো মুক্তো -50/80/120/150/250/300/45

২০. হীরা -400/500/600/800/1000/1200

২১. ম্যাসনাইট -2000/3000/4000/6000/8000

২২. স্পানিয়াল -500/700/800 1200/1500/2000

২৩. প্রবাল :300/450/500/700/800/1200+

২৪ মুক্তো : 80/150/250/350/500/800/1200+

২৫. হীরা Cent:400/500/700/800/1200/1500

রত্নের বিভিন্ন মূল্য তালিকা ( রতি বিচারে) রত্নের নাম ও দাম 

১. পান্না ১৫০০ – ৩০০০ টাকা

২. চুনি – ১৫০০ – ২৫০০ টাকা

৩. নীলা – ১৫০০- ৪৫০০ টাকা

৪. পোখরাজ – ২০০০ – ৪৫০০ টাকা

৫. সবুজ পোখরাজ – ৪৫০০ – ৭০০০ টাকা

৬. লাল পোখরাজ – ২০০০ – ৪০০০ টাকা

৭. গোলাপি পোখরাজ – ৪৫০০ – ৭০০০ টাকা মুক্তা

৮. গোমেদ – ৪০০ – ৬০০ টাকা

৯. মুক্ত – ১০০ – ৮০০ টাকা

১০. লাল প্রবাল – ৫০০ – ৮০০ টাকা

১১. ক্যাটসআই – ৬০০ – ১০০০ টাকা

১২. পেরিডট – ১৫০০ – ২৫০০ টাকা

১৩. রুবি – ১৫০০ – ৩৫০০ টাকা

১৪. হীরা (সেন্ট) – ৮০০ – ২০০০ টাকা

উপরত্ন বিভিন্ন মূল্য তালিকা ( রতি বিচারে) রত্নের নাম ও দাম 

  1. সিট্রিন স্টোন – ১০০ – ৩০০ টাকা
  2. এমিথিস্ট – ১০০ – ৫০০ টাকা
  3. ব্লাড স্টোন – ৮০ – ২০০ টাকা
  4. নীল হকিক – ৮০ – ২০০ টাকা
  5. ইয়েলো জেসপার – ৮০ – ১৫০ টাকা
  6. রেড জেসপার – ৮০ – ১৫০ টাকা
  7. সোডা lite – ৮০ – ১৫০ টাকা
  1. ব্লু টোপাজ – ৬০০ – ১০০০ টাকা
  2. জারকোন – ১৫০০ – ২৫০০ টাকা
  3. ফিরোজা – ৩০০ – ৮০০ টাকা
  4. অলিভিন – ১২০০ – ২৫০০ টাকা
  5. গার্নেট – ৮০ – ৫০০ টাকা
  6. সাদা প্রবাল – ১০০ – ২৫০ টাকা
  7. টাইগার আই – ৮০ – ১৫০ টাকা
  8. মুনস্টোন – ৮০ – ২৫০ টাকা
  9. লাপিস লাজুলি – ৮০ – ২০০ টাকা
  10. কার্নেলিয়ান – ৮০ – ১৫০ টাকা
  11. ফ্লুরাইট – ৮০ – ১৫০ টাকা
  12. সানস্টোন – ৮০ – ২০০ টাকা
  13. ম্যালাকাইট – ৮০ – ২০০ টাকা
  14. রোজ কোয়ার্টজ – ৮০ – ২০০ টাকা
  15. জেড – ৮০ – ২০০ টাকা
  16. ফায়ার ওপাল – ৩০০ – ৪৫০ টাকা

কোন পাথরের কত দাম

Related posts
Products

Top 10 Room Heater Price In Bangladesh

A room heater is a small appliance that is used to heat a room or enclosed space. Room heaters come…
Read more
Products

Top 10 General AC Price In Bangladesh

General AC Price In Bangladesh General ac is a type of air conditioning that uses a compressor to…
Read more
Products

Top 15 Boya Microphone Price In Bangladesh

boya microphone price in Bangladesh Boya Microphone Price In Bangladesh, boya microphones are a…
Read more
Newsletter
Become a Trendsetter

Sign up for Davenport’s Daily Digest and get the best of Davenport, tailored for you.

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *